অব্যবহৃত ইন্টারনেট ডেটা ফেরত পেতে তথ্য জানানো হয়েছে। - দৈনিক আজকের দুর্নীতি
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৭ মার্চ ২০২২

অব্যবহৃত ইন্টারনেট ডেটা ফেরত পেতে তথ্য জানানো হয়েছে।

নাজমুল রনি
মার্চ ১৭, ২০২২ ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

অব্যবহৃত ইন্টারনেট ডেটা ফেরত পেতে গ্রাহকদের নতুন করে কিছু শর্ত দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি)।

তারা জানিয়েছে, কোনও গ্রাহক যদি অব্যবহৃত ইন্টারনেট ডেটা ফেরত পেতে চান তাহলে তাকে দুটি শর্ত মানতে হবে। প্রথম শর্ত হলো- যে প্যাকেজের ডেটা অব্যবহৃত রয়ে গেছে, সেই একই প্যাকেজ আবার কিনতে হবে। আর দ্বিতীয় শর্ত হলো- বিদ্যমান প্যাকেজ মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার আগেই প্যাকেজটি আবার কিনতে হবে। তবে ভিন্ন প্যাকেজ কিনলে ডেটা ফেরত পাওয়া যাবে না। সম্প্রতি বিটিআরসিতে অনুষ্ঠিত ‘ডেটা প্যাকেজ নির্দেশিকা’ অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী মোবাইল ফোন অপারেটররা ‘রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’ কাজের জন্য সর্বোচ্চ ১০টি প্যাকেজ ব্যবহার করতে পারবে। প্যাকেজের ভিন্নতা নির্ধারণে দুটি প্যাকেজের মধ্যে ন্যূনতম পার্থক্য হবে ১০০ এমবি ডেটা অথবা ১০ মিনিট টকটাইম অথবা উভয়ই। সব প্যাকেজের মেয়াদ ৩, ৭, ১৫ বা ৩০ দিনের হতে হবে। গত ১৬ মার্চ থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর করা হয়।

এর আগে ১৫ মার্চ বিটিআরসি কার্যালয়ে ‘ডেটা প্যাকেজ নির্দেশিকা’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, সামনের দিনগুলোতে মোবাইল অপারেটরদের প্রধান ব্যবসায় জায়গা হবে ডেটা। মোবাইলে কল থাকবে, কথা থাকবে তবে শতভাগ কথাই ডেটা নির্ভর হয়ে যাবে। তা নিয়ে এখনই গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী ব্যবসায় পরিকল্পনা করতে না পারলে অপারেটরদের পিছিয়ে পড়তে হবে।

তিনি বলেন, আগে তিন দিনেই যে ডেটার মেয়াদ শেষ হয়ে যেত এখন তার মেয়াদ একটু বেড়েছে। তবে এটাকে মেয়াদহীন করার বিষয়ে বিটিআরসিকে কাজ করতে হবে। এ বিষয়ে অপারেটরদের অবশ্যই এগিয়ে আসতে হবে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।