আইন আদালত

অভয়নগরে বাল্য বিয়ের হিড়িকে কর্তৃপক্ষের নেই কোন তদারকিঃ ১১বছরের তানিয়ার ভবিষ্যৎ কি ?

  প্রতিনিধি ২৮ আগস্ট ২০২২ , ৪:৩১:৩০ প্রিন্ট সংস্করণ

মোঃ কামাল হোসেন,বিশেষ প্রতিনিধি:

শোরের অভয়নগর উপজেলায় প্রতিদিন বাড়ছে বাল্য বিয়ে, কর্তৃপক্ষের যথাযথ তদারকির অভাবে হরহামেশা ঘটছে বাল্য বিয়ের মতো জঘন্য অপরাধ। সম্প্রর্তি ঘটে যাওয়া কিছু বাল্য বিয়ের ঘটনা মারাত্মক হয়ে দাড়িয়েছে। গত ২মাস আগে নওয়াপাড়া রানা ভাটা এলাকার রবিউল ইসলাম ওরফে রবি ড্রাইভারের মেয়ে স্কুল ছাত্রী লিমা আক্তার(১২) কে লোকচক্ষুর আড়ালে বিয়ে দেওয়া হয়। স্থানীয় অনেকে এ বিষয়টিকে জঘন্য অপরাধ বলে মন্তব্য করেছেন। গত ১মাস আগে নওয়াপাড়া রেল স্টেশন এলাকার মাছ বাজার সংলগ্ন রেল বস্তি নামে পরিচিত মৃত- গহর আলী ওরফে কানা গহুরের মেয়ে তানিয়া খাতুন (১১) কে ফুলতলা এলাকায় বিয়ে দিলে মেয়েটি পাশবিক নির্যাতন সইতে না পেরে অসুস্থ হয়ে পিতার বাড়ি এসে রয়েছে। এবিষয়টিকে এলাকার মানুষ মেনে নিতে পারছেনা। এলাকার অনেকে তানিয়ার ভবিষ্যৎ কি? এই প্রশ্ন রেখে বলেন, এই সব জঘন্য অপরাধের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে কঠোর শাস্তির আওতায় নেওয়া উচিৎ। কিন্তু আমরা এলাকার মানুষ সচেতন হলে কি হবে? যারা এই সব বাল্য বিয়ে বন্ধ করবে তারা বড় অফিসে ঘুমিয়ে থাকে। তারা যদি তদারকি সঠিক ভাবে করতো এবং সকল বাল্য বিয়ের বিষয়ে শাস্তির উদ্যেগ নিত তাহলে সমাজে তানিয়ার মতো ছোট শিশুদের এই পরিণতি হতনা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই সব বাল্য বিয়ে পড়ানোর পিছনে সব থেকে বড় হাত থাকে রেজিষ্টার কাজীর, যারা কিছু টাকার লোভে এই সব বাল্য বিয়ে পড়িয়ে থাকেন এবং বিয়ের নামে প্রহশনমুলক নন জুডিশিয়াল স্টাম্পের উপর বিয়ের ঘোষণা পত্র করে উভয় পরিবারকে বলে তাদের বিয়ে হয়ে গেছে। এমন অভিযোগ নওয়াপাড়া পৌর এলাকার কিছু অসাধু সরকারি রেজিষ্ট্রেশন কাজিদের বিরুদ্ধে রয়েছে। সচেতন মহল মনে করে এসব অসাধু অবৈধ পন্থায় যে সব কাজিরা বিয়ে নামের জঘন্য বাল্য বিয়ের সাথে জড়িত তদন্ত করে তাদের সরকারি লাইসেন্স বাতিলসহ তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হোক। এবিষয়ে অভয়নগর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রাজ কুমার পাল বলেন, সঠিক খবর ও অভিভাবকগণের অবহেলায় এরকম ঘটনা ঘটছে। যে সব বাল্য বিয়ে হচ্ছে, এদের ভবিষ্যৎ রক্ষার একটাই উপায় আছে, যে সব মেয়েদের বাল্য বিয়ে হয়েছে এদের পক্ষ হয়ে কেউ যদি অভিযোগ দেয়, তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। আর এই অপকর্মের সাথে জড়িত ভূয়া কাজিদের তথ্য দেন, আমরা কাজির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।।

আরও খবর

                   

জনপ্রিয় সংবাদ