দুর্নীতি

গাইবান্ধায় বাম জোটের প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ

  প্রতিনিধি ১৬ আগস্ট ২০২২ , ৭:১০:২৪ প্রিন্ট সংস্করণ

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ

জ্বালানী তেল, ইউরিয়া সারসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও
সমাবেশ করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট, গাইবান্ধা জেলা। জোটের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষিত দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ কর্মসূচি পালন করে গাইবান্ধায় এ কর্মসূচি পালিত হয়।মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ
অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বাসদ (মার্কসবাদী) আহবায়ক আহসানুল হাবীব সাঈদ, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, বাসদের জেলা আহবায়ক গোলাম রব্বানী, ওয়ার্কার্স পার্টি মার্কসবাদী জেলা সভাপতি রেবতী বর্মণ প্রমুখ। এর আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের
কার্যালয়ের সামনে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার অযৌক্তিকভাবে জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। এর প্রভাব পড়বে নি¤œ আয়ের মানুষের উপর। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম হু হু করে বাড়তে শুরু করেছে। সম্প্রতি সরকার ইউরিয়া সারের
মূল্যবৃদ্ধি করেছে। ফলে কৃষক আজ দিশেহারা। তারা, সরকারের এই গণবিরোধী সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান এবং গণবিরোধী-ফ্যাসিবাদী সরকারের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে
তোলার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানান। এসময় নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এই সরকারের আমলে সর্বত্র লুটপাট হয়েছে। গাইবান্ধায়ও বিভিন্ন প্রকল্পে সীমাহীন লুটপাট হয়েছে। এসবের
বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে বাম জোটের নেতাদের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দেয়া হয়েছে। কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারি সাধারণ সম্পাদক মিহির ঘোষ, বাসদ মার্কসবাদী নেতা গোলাম ছাদেক লেবু, সিপিবি নেতা ছাদেকুল মাস্টারসহ নেতাকর্মীদের
নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। দীর্ঘ আট মাস হলেও সেই মামলার রহস্যজনক কারণে চার্জশীট দেয়া হচ্ছে না। এছাড়া কামারজানি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান মেম্বার কর্তৃক নদীভাঙ্গনের শিকার মানুষদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা বলে পনের হাজার করে টাকা নেয়ারও প্রতিবাদ জানান।

আব্দুল মুনতাকিন জুয়েল
গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি
০১৭৩৯১৫৭১১৫

আরও খবর

                   

জনপ্রিয় সংবাদ