ব্রেকিং নিউজ

পটুয়াখালীর মরিচ বুনিয়া ইউঃমেম্বার’র নের্তৃত্বে বর্তমান চেয়ারম্যানের ছেলেকে হত্যার চেষ্টা!(পর্ব-১)

মু,হেলাল আহম্মেদ(রিপন)পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর কোর্ট এলাকায় দিনেদুপুরে উকিল চেম্বারের সামনে রফিক মেম্বার’র নের্তৃত্বে হত্যার উদ্দেশ্য হামলা চালিয়ে জখম করে মাসুম মৃর্ধা সহ বেশ কয়েকজনকে আহত করা হয়।ঘটনার সুএে জানাযায়, পূর্বশত্রুতার জের ধরে গত ৮ই এপ্রিল দুপুর আড়াইটার দিকে পটুয়াখালীর কোট এলাকার উকিল চেম্বারের সামনে ইউসুফ এর দোকানে এ হামলা চালায় রফিক মেম্বার ও তার পেটোয়া বাহিনী কতৃক এ ঘটনাটি ঘটে।
মাসুম মৃধা উকিল চেম্বার এর সামনে ইউসুফ এর দোকানে বসেছিলেন এ সময় দেশীয় অস্রদিয়ে মাসুম মৃধা (৩৫) পিতা- দেলোয়ার হোসেন মৃধা, শাহবুদ্দিন মোল্লা (৩৬), পিতা জালাল মোল্লা, বাশার মাতুব্বর (৫০), পিতা- দেলোয়ার মোল্লা, জাকির মোল্লা (৫৫) পিতা- আলী আকবর মোল্লা, সাহবুদ্দিন মাতুব্বর (৬৫) পিতা মৃত হাসেম মাতুব্বরকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে রফিক মেম্বর (৪০) পিতা আবদুল আজিজ, মোশাররফ (৩৮) পিতা- আবদুল আজিজ, মামুন পিতা আবদুল আজিজ, রিয়াদ(২৪) পিতা শফিক উদ্দিন, মেহেদী (২০) পিতা- আলমগীর মোল্লা, রুবেল (২৫) পিতা আলমগীর মোল্লা, আসলাম (২৬) পিতা ফারুক হাওলাদারসহ আরও ৪/৫ জন দেশীয় অস্রদিয়ে দিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এই হামলায় ইউসুফ এর দোকানে ব্যাপক ক্ষতি হয় বলে দোকানদার ইউসুফ এমনটাই জানান।
এ ব্যপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে পারিবারিক সুএে জানাযায়, এছাড়াও রফিক মেম্বারের সাথে যোগাযোগ করতে তার ব্যবহৃত মুঠোফোন নাম্বার (০১৭৩৮৫৬৫৪৪৩)এ ফোন করলেও  ফোনটি রিসিভ হয়নি।এবিষয় স্থানীয় জনৈক ব্যক্তিরা নাম না বলা শর্তে জানায়,এ হামলায় মাসুম মৃর্ধাসহ একাধিক ব্যক্তিরা গুরুতর আহত হয়েছে মেম্বার রফিকের নেতৃত্বে এ ন্যাক্কার জনক ঘটনা হয়েছে বলে জানান তারা।উপরে উল্লেখিত বিষয় নিশ্চিত করতে পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অফিসার ইনচার্জ আক্তার মোর্সেদ’র কাছে মুঠোফোনে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন,এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি তবে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে এসময় তিনি আরো জানান অপরাধী যেই হোক না কেন কোন প্রকার ছাড় পাবেনা এমনটাই জানান তিনি।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের হয়নি।

আরো দেখুন

গৃহবধূকে ধর্ষনে সহযোগিতার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় এক সন্তানের জননী এক গৃহবধুকে ধর্ষনে সহযোগিতা করার অভিযোগে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *