ভোগান্তিতে পড়ছে বাংলাদেশী যাত্রীরা ভারতের পেট্রপোলে নতুন নিয়োম ফেরত আসছে যাত্রীরা। - দৈনিক আজকের দুর্নীতি
ঢাকাসোমবার , ৪ জুলাই ২০২২

ভোগান্তিতে পড়ছে বাংলাদেশী যাত্রীরা ভারতের পেট্রপোলে নতুন নিয়োম ফেরত আসছে যাত্রীরা।

বেনাপোল যশোর জেলা প্রতিনিধি
জুলাই ৪, ২০২২ ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে যাবার সময় ভারতের পেট্রোপোল থেকে ফিরে আসছে বাংলাদেশের যাত্রীরা।ট্যুরিস্ট ও বিজনেস ভিসায় ভারত ভ্রমণে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে পেট্রাপোলইমিগ্রেশন। ট্যুরিস্ট ভিসায় ৯০ দিন ও বিজনেস ভিসায় ১০ দিনের মধ্যে ভারত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।গত শুক্রবার (১ জুলাই) সকাল থেকে যাতায়াতের নতুন নিয়ম করে ভারতীয় ইমিগ্রেশন থেকে ফেরত পাঠান। এর আগে ট্যুরিস্ট ভিসায় মাসে একাধিকবার ও বিজনেস ভিসায় ইচ্ছেমতো ভারত যাতায়াতের সুযোগ ছিল।পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন সূত্র বলছে, ট্যুরিস্ট ভিসায় প্রথম ভ্রমণের তিন মাস ও বিজনেস ভিসায় ১০ দিনের মধ্যে কাউকে গ্রহণ করা হবে না। ফেরত দেওয়াদের মধ্যে অনেকের প্রথম ভ্রমণের দেড় থেকে দুই মাস পর পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন দিয়ে ভারতে ঘুরতে যাচ্ছিলেন।সোহেল রানা নামের এক যাত্রী জানান, দুই মাস আগে ট্যুরিস্ট ভিসায় ভারতে গিয়েছিলাম। ঈদে কেনাকাটার জন্য আবার ভারতে যাচ্ছিলাম। কিন্তু ভারতীয় ইমিগ্রেশন জানিয়েছেন এ ভিসায় তিন মাস আগে আর যাওয়া যাবে না।বিজনেস ভিসাধারী যাত্রী রুহুল আমিন জানান, এক সপ্তাহ আগে ব্যবসার কাজে ভারতে যাই। ব্যবসায়িক কাজে শনিবার ভারত যেতে চাইলে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন ফিরিয়ে দেয়।আলাউদ্দিন নামের গমনেচ্ছু আরেকজন বলেন, দুই বছরের অধিক সময় ঘোরাফেরা হয় না। দীর্ঘদিন পর ভারতে বেড়ানোর জন্য স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনে গেলে ভারতে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মাদ রাজু বলেন, ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন ট্যুরিস্ট ও বিজনেস ভিসার যাত্রী যাতায়াতে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। ট্যুরিস্টে ৯০ দিন ও বিজনেসে ১০ দিনের মধ্যে ভারতে প্রবেশ করার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়। গত দুদিনে ট্যুরিস্ট ও বিজনেস ভিসায় দুই শতাধিক যাত্রী ফেরত পাঠিয়েছে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন। গত কয়েকদিনে
ভারতের পেট্রোপোল থেকে হাজার হাজার মানুষকে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতের পেট্রোপোলের ইমিগ্রেশন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।